অবিচ্ছেদ্য হৃদয়

  •  
  •  
  •  
  •  

খুব জানতে ইচ্ছে করে তুমি কেমন আছো? আমার দু’চোখ সারাটি দিন তোমার ঠিকানা খুঁজে খুঁজে ফিরে, আর প্রবল বৃষ্টিতে ফুলেফেঁপে ওঠা নদীর মত জলে থৈ থৈ করে। আমি তোমাকে কোথায় খুঁজে পাব? সেই যে গেলে চলে নিরবে অভিমানে, যা বলার ছিল বলে যদি যেতে হয়ত আজ আমি তোমার পাশেই রয়ে যেতাম। হয়ত নয়। কিন্তু শান্তনা পেত মন। হায় মন। পেয়ে হারানোর ব্যথা সে কি করে মেনে নেবে? এই মন গেঁথে রেখেছে তোমার চোখের না বলা সব কথাগুলি। কতটা কাজল আঁকা তোমার দু’চোখে আমি ছাড়া আর কে জানে? হু। আর আমাদের রব জানেন। তিনিতো সবই জানেন, আমি তোমাকে কতটা বেসেছি ভাল। তুমি কেন জানলে না?

তুমি কেন আমাকে কখনও বলনি যে আমি তোমার সেই প্রিয় নই, যাকে তুমি ভালবাসতে পার। আমি তোমার চোখে এক সাধারণ মানব বৈ অন্য কেউ নই। সেই আমাকে তুমি কি করে অপমানে অপমানে ছিন্ন ভিন্ন করে দিতে পার, কি করে? ভালোবেসে যে পাখিটি তুমি কিনে এনেছিলে, আমি ওকে ছেড়ে দিয়েছি। আমার খুব কষ্ট হচ্ছিল ওকে দেখে। ওকে আমি আমার মত খুব ছটফট করতে দেখলাম। প্রিয় সঙ্গীকে না পাওয়ার কষ্ট ওকে দিবা-নিশি জাগিয়ে রাখছে। আমার আর ওকে বন্দী করে রাখা হল না। ও যে আমারই মত ধুকে ধুকে মরতে বসেছে। তাই ছাদে নিয়ে মুক্তি দিয়েছি। আমি জানি ও ঠিকই ফিরে গেছে নীড়ে।

কত দিনের কত কথা জমেছিল ওর মনে আমি জানি তার সবই। জানব না? আমিও তো ওর কাহনেই লুকিয়ে আছি। ফিরে আসো না। তুমিও আমাদের নীড়ে। কোনদিন তবে দেখ, তোমার জন্য আমার ভালবাসার স্তুতিগাঁথা্য় বোনা হয়েছে কতশহস্র নক্শী কাঁথা। যদি ফিরে এসে এই অভাগাকে নাই পাও এ ধরায়। যেনে নিও, আমি ছিলাম শেষ প্রহরেও তোমার অপেক্ষায় । কবরের পাশে দাঁড়িয়ে দু’হাত তুলে মোনাজাত করতে ভুলনা। যেন আমি ঐ পারেও তোমাকেই সঙ্গী করে পাই। এই অপেক্ষার মাঝেই চির শান্তির নিদ্রায় চলে যাই। ভাল থেকো তুমি।

ইতি তোমারই

২০/০৩/২০২০, ১১.৪১ AM

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *