অবিনাশ ডট কম

  • 2
  •  
  •  
  •  
    2
    Shares

আপনাদের কাছে আইডিটা ফেইক হতে পারে বাট মানুষটা রিয়েল। ফেইক না মোটেও। সে যাই হোক, মূল প্রসঙ্গে আসি। আমি এক সময় নিয়মিত নামাজ পড়তাম। কিন্তু কোন এক কারনে, নামাজ পড়া অনিয়মিত হয়ে গেলো। আস্তে আস্তে নামাজ পড়া ভুলে যেতে বসলাম। জীবনের এই নির্মম সময়ে খুব কাছের দুজন বন্ধুর কাছে নিজের ভেতরের তোলপাড়ের কথা, অসহায়-অসারতার কথা বলতেই তারা দুজনে একটাই কথা বললেন,
– “নামাজ পড়, মন শান্ত হবে।”
গভীর গুরুত্ব নিয়ে তাদের কথা ভাবতে ভাবতে আমার নিজের জায়নামাজটা খুঁজতে লাগলাম। কিন্তু দুঃখের বিষয় কোথাও পেলাম না।

আমার একান্ত ব্যক্তিগত বিষয় গ্রুপে পোষ্ট দেয়ার একটাই কারন, কেউ কি আমাকে একটা জায়নামাজ গিফট করবেন? আমি আবার নামাজ পরতে চাই। নিজের ভিতরের জ্বালা পোড়া আর অশান্ত হৃদয়টাকে শান্ত করতে চাই। আপনারা অনেকেই হয়তো বলবেন, একটা জায়নামাজের আর কয় টাকা দাম? কিনে নিলেই তো পারেন। তাদের উদ্দ্যেশ্যে বলতে চাই, একটা জায়নামাজ কেনার তৌফিক আল্লাহ আমাকে দিয়েছেন। নিজে কিনলে আর গ্রুপে পোষ্ট দিতাম না।

এমন আনসেন্সরড গ্রুপে পোষ্ট দেয়ার কিছু কারন আছে। কারন গুলো নিম্নরূপ –
১। ২৯ মিনিটের লিঙ্কের জন্য সবাই হুড় মুরি খেয়ে পরে। আমি দেখতে চাই ২৯ মিনিটের আড়ালে কয় জন আমার “একটি জায়নামাজ চাই” শির্ষক পোষ্টটি পজিটিভলি নেন এবং আমার আহ্বানে সাড়া দেন।

২। আজকে কেউ যদি আমাকে একটি জায়নামাজ প্রদান করে তবে আমি আল্লাহ তাআলা ছাড়াও ঐ ব্যক্তির কাছে ওয়াদা বদ্ধ হলাম নামাজ পড়ার জন্য যে আমাকে একটি জায়নামাজ প্রদান করলো। আর নিশ্চই আল্লাহ সুবহানা তাআলা ওয়াদা ভঙ্গকারীদের পছন্দ করেন না।

৩। আমার এমন শো অফ মার্কা পোষ্ট দেখে অন্তত এক জন ভাই বা বোন যদি নামাজ পড়ায় আগ্রহী হয় (হোক না অনিয়মিত, তাতে কি) তবেই আমি সার্থক।

লাষ্ট বাট নট ইন দ্যা লিষ্ট – বাজে কথা, কটু কথা বলা মানুষদের “Silently Ignore” করলাম। আমরা সবাই জানি, কুকুরের কাজ কুকুর করে। তাতে আমার কি আসে যায়? ধন্যবাদ।

৩০/০৫/২০২০, ০৮.৫৭ PM

নোটঃ অবশেষে আমার পরিচিত এক ছোট্ট বন্ধু আমার জন্মদিনে একটি জায়নামাজ উপহার স্বরূপ দিয়েছিলো। আমি এখন সেটাতে জামাজ পড়ি। আপনারা আমার জন্য দোয়া করবেন। অবিনাশের জন্যও দোয়া করবেন কারন, আজ ৩০/০৫/২০২০ ইং তারিখ। আজ অবিনাশের চতূর্থ জন্মদিন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *