অল্প বয়সে করলাম বিয়া

  •  
  •  
  •  
  •  

অনেকেই কম বয়সে বিয়ের কথা শুনলে আতকে উঠেন, আমি উঠিনা। ফেসবুকের দুনিয়া আর বাস্তবতা এক না। একজন পুরুষ যদি তার স্ত্রীকে খাওয়ানো ও পরানোর সামর্থ্য রাখেন, তাহলে ঠিক কি কারনে তাকে ২১ বছর হওয়া বা বেকার বড় ভাই বা ছোট বোনের বিয়ে হওয়া পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হবে? বিশেষ করে বাংলাদেশের মত দেশে, যেখানে পনের বছর বয়সেই পোলাপান পেকে ঝুনা নারকেল হয়ে যায়? আর মেয়েদের নিজেদের পায়ে দাড়ানোর কথা বলছেন? ‘প্রেম কুমারী’দের সম্পর্কে কোন আইডিয়া আছে? খোদ বেগম রোকেয়াকে পাউডার বানিয়ে খাইয়ে দিলেও এদের পড়াশোনা বা নিজের পায়ে দাড়ানোর ব্যাপারে উৎসাহিত করতে পারবেন না, এদের লাইফে আছে কেবল প্রেম আর বিয়ে, চ্যাপ্টার কোজ।

এনিওয়ে, আমার মতে ঝোপের চিপায়-চাপায়, লিটনের ফ্ল্যাটে আর হোটেলের রুমে ইটিস পিটিস করে আইন নিয়ে বিভ্রান্ত পুলিশ আর ম্যাজিস্ট্রেটের হাতে ধরা খাওয়ার চেয়ে বরং বিয়ে করে ফেলাই ভাল। সমস্যাটা হয় সেইসব পোলাপান নিয়ে যারা বিয়ে করে বাপের হোটেলে থাকতে চায়, এদের কথা শুনলে মনে হয় একটা মেয়ের কেবল খাবার খরচ আছে, আর কোন খরচ নেই, তারা নিজের প্লেটের অর্ধেক সেই মেয়েকে দিতে চায়, তাও ভালো যে জাঙ্গিয়া কেটে ব্রা বানিয়ে দেয়ার প্রস্তাব এখন পর্যন্ত উঠেনি, বাট হু নোজ, ভবিষ্যতে উঠতেও পারে!

ডিয়ার রোমিও এবং হবু বরগন, মন দিয়ে শুনুন, সংসার চালাতে খরচ আছে। বিলাসিতা সম্পূর্ন বাদ দিলেও খরচ আছে, নরমাল খরচ আছে। বেহুদা খরচ আছে এমনকি আতকা খরচও আছে। আপনারা আমার স্বজাতি অর্থাৎ সোনারগাঁয়ের লোকদের মত কিপটা হলেও সব খরচ বাদ দিতে পারবেন না, সেটা মাথায় রেখে বীর বিক্রমে সংসার নামক যুদ্ধক্ষেত্রে প্রবেশ করুন। আর ইয়ে নিজ প্লেটের খাবার ভাগ করে যারা বাপের হোটেলে বৌ পোষার প্ল্যান করছেন, জাস্ট এ পোলাইট রিমাইন্ডার। প্লেটের খাবার আর বিছানা ভাগ করা গেলেও লুঙ্গী কেটে পেটিকোট (বা স্কার্ট, এজ এপ্লিকেবল) বানানোটা সোজা বা প্র্যাক্টিক্যাল হবেনা। আরো অনেক খরচ আছে, বর্ননা করলে পোস্ট এডাল্ট কন্টেন্ট হয়ে যাবে দেখে চেপে গেলাম।

১২/০৮/২০২০, ১১.৫৫ PM

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *