কেউ দেখেনি

  • 1
  •  
  •  
  •  
    1
    Share

বলেন তো আপনার শরীরের সবচেয়ে ইম্পরট্যান্ট অর্গান কোনটা? যেটা নষ্ট হলে লাইফ শেষ? জানি কেও বলবেন হার্ট, কেও লাং, কেও হয়ত বলবেন লিভার। অথচ যে আপনারে এটা বলার মত বোধ বুদ্ধি দিল, যে চিন্তা করার ক্ষমতা দিল, তার নাম টা ভুলেই গেলেন। মানুষ যে স্বার্থপর এটা তার প্রমাণ। সবচেয়ে যে আপন তাকে সে ইগনোর করে, তাকে ফর গ্র্যান্টেড নেয়। আমাদের শরীরের সেই অবহেলিত অর্গান, সেই সবচেয়ে কাছের জিনিসটা হল আমাদের মস্তিষ্ক। আমাদের পুরো জীবনের উপর যার নিয়ন্ত্রণ। অথচ কাওকে যখন জিজ্ঞেস করবেন,
– কেমন আছেন ভাই?
সে যদি উত্তর দেয়,
– ভাল না, শরীরটা খারাপ। সকাল থেকে ডিসেনট্রি, এই নিয়া চারবার টয়লেটে গেলাম।
আপনি আহা উহু করবেন। সমবেদনা জানাবেন, ডাক্তার দেখাতে বলবেন।

অথচ সেই মানুষটাই যদি বলে,
– ভাল না, আমি ডিপ্রেশনে ভুগতেসি। আমার কিছু ভাল লাগেনা, মনে হয় মরে যাই।
আপনি উপরে উপরে কিছু না বললেও ভেতরে ভেতরে বলবেন,
– ইস, ভং ধরসে, সুখে থাকতে ভুতে কিলায়। নিশ্চয়ই প্রেম ফ্রেম করতেসে।
হুম, আমাদের সোসাইটিতে এখন পর্যন্ত মেনটাল হেলথ সবচেয়ে কম আলোচিত, সবচেয়ে অবহেলিত বিষয়। আমাদের পেট ব্যাথা, মাথা ব্যথা, সর্দি কাশি হলে আমরা ডাক্তারের কাছে দৌড়াই। অথচ ডিপ্রেশনে ভুগলে আমরা নিজেদের আরও আইসোলেটেড করে ফেলি। কারণ মন খারাপ জিনিসটার গুরুত্ব আমাদের আসে পাশের মানুষের কাছে খুব কম। আমরা বুক ব্যাথা হলে ডাক্তারের কাছে যাই কিন্তু হৃদয় ব্যাথা হলে যাই না কারণ, তাতে গায়ে পাগলের সিল পড়ে যায়।

আমরা আমাদের কষ্ট গুলো নিয়ে দরজা বন্ধ করে দেই। হয় নিজে নিজে ফাইট করে উঠে দাঁড়াই নয়ত চির অন্ধকারে ডুবে যাই। ওয়ার্ল্ড মেন্টাল হেলথ অর্গানাইজেশন এর গবেষণায় বলা হয়েছে আমাদের প্রতি চারজনে একজনের মানসিক রোগ আছে। সেগুলোর কোনটা কোনটা সিরিয়াস মেনটাল ইলনেস। বহুবছর আনট্রিটেড থাকতে থাকতে একসময় তা জীবনের জন্য এবং পরিবারের জন্য হুমকি হয়ে দাঁড়ায়। আমরা বুঝিনা ফিজিক্যাল পেইন এর চেয়েও মেন্টাল পেইন বেয়ার করা অনেক কষ্টের। অথচ মনের ব্যথায় মরেও গেলে বলি না যে মাই হার্ট ইজ ব্রোকেন।

২৫/১২/২০১৯, ১০.৪০ PM

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *