চিত্রশিল্পী ভিনসেন্ট ভ্যান গঘ (প্রথম পর্ব)

  •  
  •  
  •  
  •  

বিশ্ব বিখ্যাত চিত্রশিল্পী ভিনসেন্ট ভ্যান গঘ। অদ্ভুত রহস্যময় জীবন ক্ষনজন্মা এই গুণী শিল্পীর। বলা হয়ে থাকে মৃত্যুর আগ পর্যন্ত নিজের জীবনকে পুরপুরি ব্যর্থ বলে মনে করতেন এই মহান শিল্পী। এমনকি তার ওয়ান অফ দ্য মাসটার পিসেস “দ্য স্টারি নাইট” আঁকার পর উনার ধারনা ছিল কোন কিছুই হয়নি ওটা। অথচ পৃথিবীর মহামূল্যবান পেইন্টিংগুলোর মধ্যে তার সেই পেইন্টিং উল্লেখযোগ্য। কথিত আছে তার বন্ধু পল গগ্যা র সাথে মনমালিন্যের ফলাফল হিসেবে তিনি তার নিজের বাম কান কেটে ফেলেন। আবার কেও বলেন, তিনি তার কান কেটে কোন এক পতিতাকে উপহার হিসেবে দিয়েছিলেন।

বিভিন্ন মেয়াদে মেনটাল এসাইলামে কাটানো নিভৃতচারী এই শিল্পী কল্পনাপ্রসুত ব্যর্থতার ভার সইতে না পেরে মাত্র সাইট্রিশ বছর বয়সে নিজের গায়ে গুলি চালিয়ে আত্মহত্যা করেন। ভিনসেন্ট ভ্যান গঘ বিষয়ক তথ্য দেয়া আমার উদ্দেশ্য না। তার সম্পর্কে পড়ে নাই, জানে না এমন মানুষের সংখ্যা খুব কম। আমার উদ্দেশ্য অন্য। চিকিৎসা বিজ্ঞানীদের মতে চিত্রশিল্পী ভ্যান গঘ ছিলেন স্কিটজোফ্রেনিয়া বা সিজোফ্রেনিয়ায় আক্রান্ত। আমার উদ্দেশ্য স্কিটজোফ্রেনিয়া বা সিজোফ্রেনিয়া নিয়ে দুইটা কথা বলা।

আমাকে এক ভদ্রমহিলা অনেকদিন ধরে মেসেজ পাঠাচ্ছেন। নানাবিধ কারণে তার সাথে কথা বলা হয়ে উঠেনি। কথা না বলার মুল কারণ উনি কেমন যেন ঘ্যান ঘ্যানানি টাইপ, দুঃখ বিলাসী। আমার দুঃখবিলাসী মানুষ পছন্দ না, এদের সাথে কথা বললে আমি নিজে হতাশায় ভুগতে শুরু করি। একদিন মনে হল, শুনি উনি কি বলতে চান। জানি উনার দুঃখ কমানর কোন মেডিসিন আমার কাছে নেই, তবে শেয়ার করলে যে মানুষের ভার হাল্কা হয় এই বিষয়টা আমি বুঝি।

[চলবে]

১৬/০১/২০২০, ০৩.০১ PM

চিত্রশিল্পী ভিনসেন্ট ভ্যান গঘ (দ্বিতীয় পর্ব)

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *