ফ্লার্ট

  •  
  •  
  •  
  •  

ছেলে – ‘আপনার বিএফ কি প্রাইভেট ভার্সিটিতে পড়তো?’
মেয়ে – ‘জ্বী।’
ছেলে – ‘এরজন্যই আপনি প্রেমের মজা পান নি। আপনার কোন সরকারি প্রতিষ্ঠানের ছাত্রের সাথে প্রেম করা দরকার ছিলো।’
মেয়ে – ‘কেন এমন মনে হলো?’
ছেলে – ‘ডেটে কোথায় গেছেন? রেস্টুরেন্ট, শিশাবার কিংবা কক্সবাজারের কোন ফাইভ স্টার হোটেলে? কিংবা নির্জন রাস্তায় গাড়ির কাঁচ তুলে মেকাউট। কিন্তু আপনি যদি আমার মতো কোন সরকারি প্রতিষ্ঠানের ছাত্রের সাথে প্রেম করতেন – তবে আপনি জানতেন দশ টাকায় ক’টা বাদাম দেয়, গোলাপের ঘ্রাণ কেমন, নীলক্ষেতের ফুচকার স্বাদ কেমন, হুড খোলা রিকশায় বসে বৃষ্টিতে ভিজতে ভিজতে চুম্বন কতোটা মিষ্টি।’

মেয়ে – ‘ফ্লার্ট করছেন?’
ছেলে – ‘জ্বী।’
মেয়ে – ‘আ’ম ইমপ্রেস। আমি সব স্বাদ নিতে চাই। হাউ এবাউট এ ডেট?’
ছেলে – ‘স্যরি। নট পসিবল। ‘
মেয়ে – ‘কেন?’
ছেলে – ‘আমি বাদাম পছন্দ করি না, গোলাপে এলার্জি, ফুচকা খাই না, বৃষ্টিতে রিকশায় বসে ভিজে চুম্বন করার জন্য বৃষ্টি আর রিকশা ভাড়া কোনটাই আমার নেই।’
মেয়ে – ‘তাহলে একটু আগে ফ্লার্ট করলেন কেন?’
ছেলে – ‘আমার ফ্লার্ট করে মেয়ে পটাতে ভাল লাগে। কিন্তু পটে যাওয়া মেয়েকে আর ভাল লাগে না।

১৩/১০/২০২০, ০৭.১৩ PM

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *