বুদ্ধির জোর

  •  
  •  
  •  
  •  

একাকী এক বৃদ্ধ ট্রেনে ভ্রমণ করছিলেন। তিনি ট্রেনের যে কামরায় উঠেছিলেন সেটি বেশ খালি ছিল। যাত্রাপথের এক স্টেশন থেকে আট দশটি যুবক সেই কামরায় উঠে হৈ হল্লা জুড়ে দিল। তাদের একজন বলল,
– চলো ট্রেনের শিকল টানা যাক।
আর একজন বলল,
– এখানে লেখা আছে অযথা শিকল টানলে পাঁচশো টাকা জরিমানা আর ছয় মাসের কারাদণ্ড হবে।
তৃতীয় আর একজন বলল,
– আমরা সকলে ভাগাভাগি করে পাঁচশো টাকার জরিমানা দিয়ে দেব।
সবার কাছ থেকে চাঁদা তুলে পাঁচশো টাকার পরিবর্তে বারোশো সংগ্রহ হয়ে গেল এবং সমস্ত টাকা প্রথম যুবকের পকেটে রেখে দেওয়া হল।

তৃতীয় যুবক বলল,
– চলো শিকল টানি। কেউ জিজ্ঞাসা করলে বলে দেব ওই বুড়োটাই শিকল টেনেছে, তাহলে আমাদের আর জরিমানার টাকা দিতে হবে না।
বৃদ্ধ সেই কথা শুনতে পেয়ে তাদের দিকে চেয়ে হাত জোড় করে বলল,
– তোমরা আমার ছেলের মতো। আমি তো তোমাদের কোনো ক্ষতি করিনি, তবে তোমরা আমাকে ফাঁসাতে চাইছ কেন?
তার কথা শুনে যুবকদের কারো মনে কোনো দয়া এলো না, শিকল টানাই হলো। রেল কর্মচারী ঘটনাস্থলে পৌঁছলে যুবকগুলি একযোগে বৃদ্ধের উপর দোষ চাপিয়ে দিল। রেল কর্মচারী বৃদ্ধকে বলল,
– এই বয়সে বাচ্চাদের মতো কাজ করতে আপনার লজ্জা করল না?
বৃদ্ধ হাত জোড় করে বলল,
– সাহেব, খুব অসুবিধায় পড়ে আমাকে শিকল টানতে হয়েছে।

রেল কর্মচারী জিজ্ঞাসা করল,
– কী অসুবিধা?
বৃদ্ধ বলল,
– আমার কাছে বারোশো টাকা ছিল, এই কটি ছেলে আমার পুরো টাকা ছিনিয়ে নিয়েছে। এখন সমস্ত টাকা এই ছেলেটির পকেটে রাখা আছে।
রেল কর্মচারী তার সঙ্গে থাকা পুলিশকে ছেলেটির তল্লাশি নেওয়ার হুকুম দিলে সেই প্রথম যুবকটির পকেট থেকে বারোশো টাকা উদ্ধার হলো। পুরো টাকা বৃদ্ধকে দিয়ে দেওয়া হলো। আর যুবকগুলিকে গ্রেফতার করে তাদেরকে পরবর্তী স্টেশনে রেলওয়ে পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হলো। যাওয়ার সময় যুবকগুলি বৃদ্ধের দিকে সরোষে তাকিয়ে দেখলে বৃদ্ধ তার সাদা দাড়িতে হাত বোলাতে বোলাতে বলল,
– এগুলো এমনি এমনি সাদা হয়ে যায় নি।

০৬/০৭/২০১৯, ১১.৪৩ PM

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *