মানি যোগ হানি (শেষ পর্ব)

  •  
  •  
  •  
  •  

অথবা আপনার প্রেমিকা লাগবে? অল্প টাকা ছাড়েন, আপনার “মেয়ে বন্ধু”রাই প্রেমিকার অভাব পূরন করে দিবে। আপনি কাকে রেখে কাকে ধরবেন, সেই ঝামেলায় পড়বেন। কিংবা প্রেমিকা আছে আপনার, এইতো? আপনার গিফট দেয়ার সামর্থ্য আছে? মোবাইলে রিচার্জ করতে পারেন? ঘন্টার পর ঘন্টা ফোনে কথা বলতে পারেন? যদি উত্তর না হয়, তাহলে এই প্রেমিকার সাথে আপনার বিয়ে হবে না, মোটামুটি সিউর থাকতে পারেন। আপনার শিক্ষা প্রতিষ্ঠান থেকে সবাই পিকনিকে যাবে। আপনার কাছে টাকা নাই তাই যাবেন না। সবাই যখন হৈ হুল্লোড় করে রওয়ানা দিবে, ফেসবুকে ছবি আপলোড করবে, আপনার কাছে ঠিক তখনই মনে হবে টাকাই দুনিয়ার সব।

আমি আবারো ধরে নিলাম, আপনি নিঃসঙ্গ, বন্ধু বান্ধবহীন একাকী একজন ভালো মনের মানুষ। সেই সাথে আপনি খুব দানশীল ও বটে। এতো কিছুর পরে সেখানেও সমস্যা। রাস্তার পাশ দিয়ে হাঁটছেন আর হঠাৎ পাশে তাকিয়ে দেখলেন অর্ধেক পা ওয়ালা এক লোক যখন সাহায্য চাইছে আপনার কাছে, অথচ আপনার নিজের পকেটই গড়ের মাঠ, তখন আপনার কাছে মনে হবে টাকাই দুনিয়ার সব। জীবনের ধাপে ধাপে, জীবন আপনাকে দেখিয়ে দিবে আপনার টাকা নাই তো এই আপনার জীবনের দুই আনাও দাম নেই। জীবনে খুব বড় হতে চাচ্ছেন? হ্যা,একদিন অনেক বড় মানুষ হলেন আপনি। কিন্তু ঠিক মতো টাকাই রোজগার করতে পারলেন না, ফ্যামিলির ভার বহন করতে পারলেন না, তাহলেও আপনি ব্যার্থ। আপনার ভেতরের ভালো মানুষটাকে কেউ পাত্তা দেবে না। ভালো হোন কিংবা খারাপ হোন, আপনার টাকা থাকতে হবে। নইলে আপনি বৃথা।

খুব ছোট্ট এই জীবনে চলতে ফিরতে যা দেখেছি তার আলোকেই একটা সারাংশ দাঁড় করালাম। আবেগী কথা নয়, বাস্তবতা আসলে এটাই। যদি সুখী ভাবতেই চান নিজেকে, এই অপ্রাপ্তিগুলোকে ইগনোর করতে হবে আপনার। যেটা করতে গিয়ে অধিকাংশ মানুষই মেকি সুখের অভিনয় করে। আমি জানি উপরের প্রতিটা ক্ষেত্রে এর ব্যাতিক্রম আছে। আমার মতে এই ব্যাতিক্রমটা ২০% মাত্র। এই ২০% আছে বলেই হয়তো এখনো মানুষ সুখী হয়, এরা আছে বলেই হয়তো আমরা বেঁচে আছি। কিছু ভালো মানুষ আজো বিপদের সময় পাশে এসে দাঁড়ায়। কিছু সম্পর্ক আজো শত ঝড়ের মাঝেও আমাদের ছেঁড়ে চলে যায় না, হাত ধরে রাখে খুব শক্ত করে। কিছু বন্ধু আজো অমলিন আর নির্ভিক সৈনিকের মতো অতন্দ্র প্রহরি হয়ে অদৃশ্য সুরক্ষার বলয় তৈরি করে রাখে আমাদের চারপাশ জুড়ে। আর সে কারনেই আমরা আজো বিশ্বাস হারাই না, আজো মাথা উচু করে এগিয়ে যাই সামনের দিকে। তাদেরকে অন্তরের অন্তস্থল থেকে জানাই অনেক অনেক ধন্যবাদ।

২৯/০২/২০২০, ০৫.২৫ PM

মানি যোগ হানি (প্রথম পর্ব)

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *