মেডিটেশন ও মাইন্ড কন্ট্রোল (চতূর্থ পর্ব)

  •  
  •  
  •  
  •  

সকালে আপনি বেশ সুস্থ শরীর নিয়েই বাড়ি থেকে বের হয়েছিলেন। কিন্তু এখন যেন কেমন দুর্বল দুর্বল ঠেকছে, শরীরটা একটু একটু করে খারাপ লাগতে শুরু করছে। আপনি যখন বাড়ি ফিরবেন তখন নিজেকে মনে হবে উদ্যমহীন, দুর্বল, অবসন্ন, শ্রান্ত-কান্ত। কথায় কথায় ‘ভাল নেই’ বলা যখন আপনার দৈনন্দিন অভ্যাস হয়ে যাবে, তখন আপনি বিষণ্ন অনুভব করবেন এবং প্রায়ই অসুস্থতাবোধ করবেন। আপনার কথামত ‘ভাল নেই’ তথ্য দৃঢ়ভাবেই আপনার ব্রেনে লিপিবদ্ধ হয়ে যেতে যেতে একসময় চিরস্থায়ী হয়ে যাবে। ফলে আপনার ব্রেন সেভাবেই তৈরি করে নেবে দেহটাকে। সবসময় ‘ভাল নেই’ বলার কারণে ব্রেনের স্বাভাবিক রোগ প্রতিরোধ করার ইচ্ছেও কমে যেতে থাকবে। ব্রেন তখন ভাববে,
– ‘অসুবিধাগুলো যখন কেবল মালিকই বুঝতে পারছে, তখন তা দূর করার জন্য নিশ্চয়ই মালিক সচেষ্ট হবে।’

অথচ বাস্তবেতো আপনি তা করছেন না। দেহকে সার্বিকভাবে সচল ও সুস্থ রাখতে দেহাভ্যন্তরে নিঃসৃত হরমোন প্রবাহকে একটা নির্দিষ্ট মাত্রায় রাখা দরকার এবং সেটা করে ব্রেন। কিন্তু আপনি ব্রেনকে স্বাধীনভাবে সেটা করতে দিচ্ছেন না। চিরস্থায়ী এক নেতিবাচক মনোভাব দিয়ে ব্রেনের স্বাভাবিক কার্যক্রমকে ব্যাহত করছেন। এতে দেহের ভেতর সব ধরনের হরমোনের স্বাভাবিক প্রবাহ বিঘ্নিত হয়ে ভারসাম্য নষ্ট হয়ে যায়। হরমোন প্রবাহের তারতম্যের কারণে দেহের নানা অংশের স্বাভাবিক কার্যক্রম বিপর্যস্ত হয়ে পড়ে। ফলে আপনি আস্তে আস্তে একসময় বেশ পীড়িত হয়ে পড়বেন এবং তা কেবল আপনার অনুভবেই ধরা পড়বে।

ব্রেনের স্বাভাবিক কার্যক্রম নির্বিঘ্নে চলতে না পারায় আপনার দেহ রোগ-জীবাণু দ্বারা বাইরে থেকে সংক্রমিত হবার সম্ভাবনা বহুলাংশে বেড়ে যাবে। বছরের বেশির ভাগ সময় আপনি কোন না কোনভাবে অসুস্থবোধ করবেন। জীবন চলার পথ সাবলীল না হয়ে বরং হয়ে উঠবে কষ্টকর অনুভবের বোঝা। এ অসুস্থতা আপনার নেতিবাচক চিন্তা ও কথা থেকে সৃষ্ট। সত্যিকারভাবে সুস্থ থেকেও তা আড়াল করে নিজের দুঃখ-কষ্ট বাড়িয়ে তুলেছেন আপনি নিজেই। নিজের সমস্যা নিজেই তৈরি করেছেন। তাই এমন মনোভাব থেকে নিজেকে বিরত রাখতে সচেষ্ট হোন। সবসময় ‘ভাল আছি’ অথবা ‘পূর্বের চেয়ে ভাল আছি’ (Better than before) বলুন। আপনি অবশ্যই লাভবান হবেন।

[চলবে]

২২/০৩/২০১৯, ১১.২৬ PM

মেডিটেশন ও মাইন্ড কন্ট্রোল (প্রথম পর্ব)

মেডিটেশন ও মাইন্ড কন্ট্রোল (দ্বিতীয় পর্ব)

মেডিটেশন ও মাইন্ড কন্ট্রোল (তৃতীয় পর্ব)

মেডিটেশন ও মাইন্ড কন্ট্রোল (পঞ্চম পর্ব)

মেডিটেশন ও মাইন্ড কন্ট্রোল (ষষ্ঠ পর্ব)

মেডিটেশন ও মাইন্ড কন্ট্রোল (শেষ পর্ব)

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *