ছেলেবেলার আঁকি-বুঁকি

ছোট বেলায় প্রাকৃতিক দৃশ্য আঁকার ঝোঁক ছিলো। কিছু না পেলেই প্রাকৃতিক দৃশ্য আঁকতে বসে যেতাম। ছবিতে থাকতো একটা বড় ঘড়। তারপাশে ছোট ছোট আরো কিছু ঘর। বড় ঘড়ের পাশে কিংবা পেছনে একটা বিশাল আকারের গাছ। পাশে কূপ অথবা টিউবওয়েল। তার পাশে একটা খড়ের পুঁজি। কিছু লম্বা সুপারি গাছ আর খেজুর গাছ। একদিকে কলা গাছ। বাড়ির একপাশে বাঁশের বেড়া। তারপর বিস্তীর্ণ ফসলের মাঠ। মাঠের মাঝ দিয়ে সরু মেঠো একলা পথ দূরে গিয়ে মিশেছে। দূরে কাগজের একমাথা থেকে আরেক মাথা পর্যন্ত সবুজ গাছ। সামনে দিয়ে নদী এঁকেবেকে দূরে চলে গিয়েছে।

নদীর মাঝে দুদিকে দুটো চলমান পাল তোলা নৌকা। Continue reading “ছেলেবেলার আঁকি-বুঁকি”