অবিচ্ছেদ্য হৃদয়

খুব জানতে ইচ্ছে করে তুমি কেমন আছো? আমার দু’চোখ সারাটি দিন তোমার ঠিকানা খুঁজে খুঁজে ফিরে, আর প্রবল বৃষ্টিতে ফুলেফেঁপে ওঠা নদীর মত জলে থৈ থৈ করে। আমি তোমাকে কোথায় খুঁজে পাব? সেই যে গেলে চলে নিরবে অভিমানে, যা বলার ছিল বলে যদি যেতে হয়ত আজ আমি তোমার পাশেই রয়ে যেতাম। হয়ত নয়। কিন্তু শান্তনা পেত মন। হায় মন। পেয়ে হারানোর ব্যথা সে কি করে মেনে নেবে? এই মন গেঁথে রেখেছে তোমার চোখের না বলা সব কথাগুলি। কতটা কাজল আঁকা তোমার দু’চোখে আমি ছাড়া আর কে জানে? হু। আর আমাদের রব জানেন। তিনিতো সবই জানেন, আমি তোমাকে কতটা বেসেছি ভাল। তুমি কেন জানলে না? Continue reading “অবিচ্ছেদ্য হৃদয়”