চিত্রশিল্পী ভিনসেন্ট ভ্যান গঘ (দ্বিতীয় পর্ব)

উনার সমস্যার কথা জানতে চাইলে উনি যা বললেন তার সারমর্ম হচ্ছে, তাকে তার স্বামী সন্তান কেও ভালবাসেনা। তার শ্বশুরবাড়ির লোকেরা সারাক্ষণ তাকে ছোট করে, ইগ্নর করে, তাকে নিয়ে আড়ালে কথা বলে, ফিসফিস করে। এমনকি তিনি মনে করেন তার স্বামীর এক্সট্রা ম্যারিটাল এফেয়ার আছে একাধিক। বাসায় যে বুয়া কাজ করে তার সাথেও তার স্বামীর সম্পর্ক আছে বলে তিনি মনে করেন। শেষ কথা হল, তার জীবন পুরাপুরি ব্যর্থ, উনি মরে যেতে চান। আমি তার সাথে খুঁটিয়ে খুঁটিয়ে কথা বললাম তার বক্তব্যের পক্ষে যুক্তি বের করার উদ্দেশ্যে। দুঃখজনক ভাবে উনি সত্যতা প্রমাণের মত কোন যুক্তিই দিতে পারলেন না। কথা বারতায় বেরিয়ে এল, এগুলো নিছক তার অনুমান, তার ইমাজিনেশন।

তার সামনে অন্য কেও কথা বলেই মনে হয় তারা তাকে নিয়েই কথা বলছে, Continue reading “চিত্রশিল্পী ভিনসেন্ট ভ্যান গঘ (দ্বিতীয় পর্ব)”