বিবিধ ফোর-প্লে (দ্বিতীয় পর্ব)

আরো একবার মন খারাপ হয়েছিল হেলাল হাফিজের ওপর। একবার প্রেস ক্লাবে বসে তাকে অনুরোধ করেছিলাম আমার একটা কবিতার বইয়ের ভূমিকা লিখে দিতে। যেহেতু আমিই তাকে নিয়ে সবচেয়ে বেশি লিখেছি, প্রেস ক্লাবের পুরোনো প্রকোষ্ঠ থেকে বের করে পরপ্রজন্মের কাছে পুনর্বার তুলে ধরেছি; তাই সেই অপরিণত বয়সে ধারণা ছিল হেলাল হাফিজ আমার বইয়ের ভূমিকা লিখে দেবেনই। আমাকে অবাক করে দিয়ে তিনি এক শব্দে ‘না’ বলেছিলেন। তার যুক্তি ছিল তিনি খুব অলস, পুরো বই পড়ে ভূমিকা লেখার মতো ধৈর্য তার নেই, আবার বই না পড়েই মিছেমিছি প্রশংসাও তিনি লিখতে পারবেন না এবং একজনকে লিখে দিলে অন্যরাও এসে জ্বালাতন করতে থাকবে তাদের বইয়ের ভূমিকা লিখে দিতে। শেষতক বলেছিলাম অন্তত দুই বাক্যের একটা শুভেচ্ছাবাণী লিখে দিতে, তিনি তাতেও রাজি হননি। Continue reading “বিবিধ ফোর-প্লে (দ্বিতীয় পর্ব)”