আমিই আমার সিন্ডিকেট (ষষ্ঠ পর্ব)

অথচ ঘৃণার পর আর ভালবাসা জন্মায়না। করুণা জন্মায়। আমার কারো প্রতি ভালবাসা নেই। করুণাও নেই। চলতে হয় তাই চলতে থাকা। বর্নহীন আলোর মতো, অন্ধকারের মতো, নিশ্চুপ সময়ের মতো। পেছানোর উপায় নেই। নিজেকে গুছিয়ে নেবার আশা নেই। বিরামহীন আলস্যতায় ভুগছি শুধু। তাই জোর করে কাজে ডুবে থাকা। কিংবা কোনো আশা খুঁজছি। কিন্তু নিজ হাতে পাবার ভাগ্য নেই। এতো বিস্তীর্ণ দীর্ঘশ্বাসে কারো সাথে নিঃশ্বাস মেলাবার সুযোগ নেই। আমি হাসি, হাসির ভেতর অসংখ্য আকাঙ্খা, হতাশা, চাপা আনন্দ লুকিয়ে থাকে। রাত হলে নিজের নিশ্চুপতা অসংখ্য কোলাহলের জন্ম দেয়। এতো কোলাহলে ঘুম আসেনা। যে একলা সে শত ভীরের মাঝেও একলা।

আমার পাশে অনেক মানুষ। এরা আসে। এরা যায়। এরা আমার অংশ নয়। Continue reading “আমিই আমার সিন্ডিকেট (ষষ্ঠ পর্ব)”

অল্প বয়সে করলাম বিয়া

অনেকেই কম বয়সে বিয়ের কথা শুনলে আতকে উঠেন, আমি উঠিনা। ফেসবুকের দুনিয়া আর বাস্তবতা এক না। একজন পুরুষ যদি তার স্ত্রীকে খাওয়ানো ও পরানোর সামর্থ্য রাখেন, তাহলে ঠিক কি কারনে তাকে ২১ বছর হওয়া বা বেকার বড় ভাই বা ছোট বোনের বিয়ে হওয়া পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হবে? বিশেষ করে বাংলাদেশের মত দেশে, যেখানে পনের বছর বয়সেই পোলাপান পেকে ঝুনা নারকেল হয়ে যায়? আর মেয়েদের নিজেদের পায়ে দাড়ানোর কথা বলছেন? ‘প্রেম কুমারী’দের সম্পর্কে কোন আইডিয়া আছে? খোদ বেগম রোকেয়াকে পাউডার বানিয়ে খাইয়ে দিলেও এদের পড়াশোনা বা নিজের পায়ে দাড়ানোর ব্যাপারে উৎসাহিত করতে পারবেন না, এদের লাইফে আছে কেবল প্রেম আর বিয়ে, চ্যাপ্টার কোজ। Continue reading “অল্প বয়সে করলাম বিয়া”

আমি জানি না

এক যুবক এক সন্ন্যাসীর কাছে গিয়ে বলল,
– “বাবা, আপনার কাছে আমার তিনটি প্রশ্ন আছে৷ অনুমতি দেন তো করে ফেলি?”
সন্ন্যাসী সম্মতি সূচক মাথা নাড়লেন এবং যুবকটি একে একে তার তিনটি প্রশ্ন পেশ করল –
১) একদিন যখন মরে যেতেই হবে, তখন সবাই চিরকাল বাঁচতে চায় কেন?
২) অর্থ ও সম্পত্তি মানুষ সঙ্গে নিয়ে যেতে পারে না, তাও সেগুলোকে কেন নিজের জীবন দিয়ে রক্ষা করে?
৩) মানুষ মানুষকে না ভালবেসে উল্টো শত্রুতা করে কেন?

সন্ন্যাসী মন দিয়ে তিনটি প্রশ্ন শুনলেন। তারপর তিনি দেশলাই বাক্স থেকে Continue reading “আমি জানি না”

সফলতার “সফল লতা”

সবার আগে বিশ্বাস করুন যে “Everyone has a special skill” ভেবে দেখুন জীবনে যদি সব সময় সব পরিস্থিতি আপনার অনুকূলে থাকতো তাহলে কি কোনদিনও আপনি প্রাপ্তির আনন্দ কি হয় সেটা বুঝতে পারতেন? যেকোন সফলতা অর্জনের আনন্দ তখনই দ্বিগুণ হয় যখন সেটাকে অর্জন করতে আপনাকে সমস্ত কিছুর উপরে গিয়ে লড়তে হয়। আপনি যদি আপনার চিন্তা শক্তি স্থির আর অটুট রাখেন তাহলে যেকোন প্রতিকূলতার বিরুদ্ধে গিয়ে আপনি সফল হতে পারবেন। আর আপনি যদি জীবন যুদ্ধে লড়তে গিয়ে বিরূপ পরিস্থিতি দেখে ভেঙ্গে পড়েন তাহলে এই লিখাটি আপনার জন্য। যখনই কোন কাজের ক্ষেত্রে বা জীবনের কোন সময়ে বিরূপ পরিস্থিতির সম্মুখীন হন তাহলে একবার ঠাণ্ডা মাথায় ভেবে দেখুন সত্যি কি আপনি আপনার চারপাশের পরিস্থিতির মধ্যে এতোটাই আটকে গেছেন যে বের হতে পারছেন না। Continue reading “সফলতার “সফল লতা””

হাড্ডির সারপ্রাইজ

আজ আমাকে ছেলে পক্ষ দেখতে আসবে। আর এই বিয়েটাও আমি করছি না। কারণ আমার পছন্দের একজন মানুষ আছে। তবু সেজে গুঁজে যেতে হয় তাদের সামনে। এর একটা কারণ হলো আমি যাকে পছন্দ করি সে। আমি জীবনে এমন একটা মানুষকে পছন্দ করেছি যার সাথে চলতে গিয়ে প্রতিনিয়তই উদ্ভট সব কাণ্ডকারখানা আমাকে দেখতে হয়। যাকে পছন্দ করি তার নাম ‘হাড্ডি।’ এটা আমার দুই দুষ্টু ভাইবোনের দেওয়া নাম। আমিও এখন এই নামেই ডাকি। ওর সাথে সম্পর্ক হওয়ার পরে আমার ভাইবোনের সাথে ওকে পরিচয় করিয়ে দেই। সেই সাথে আমার ভাইবোন আমার পর হয়ে গেলো। প্রায়ই শুনতে হয় ওরা তিন জন মিলে এখানে ওখানে খেতে যায়। আমাকে এসে ছবি দেখায়। আমার প্রচণ্ড রাগ হয় প্রথমে। এরপরে আমার এতো ভালো লাগে যে আমার কলিজা পুরো ঠাণ্ডা হয়ে যায়। ওদের এই সম্পর্কটা আমার খুব ভালো লাগে। Continue reading “হাড্ডির সারপ্রাইজ”

ফেইক আইডি

সেদিন গভীর রাতে ফ্রেন্ডলিস্টের এক ক্লোজ ছোটো বোন আমারে মেসেজ দিয়ে বলে,
– ‘স্যরি ভাইয়া।’
আমি তো অবাক,
– স্যরি কেন হঠ্যাৎ?
মেয়ে বললো,
– ‘আসলে আপনাকে একটা সিক্রেট বলি। আপনি দুই মাস আগে ফোনে যে মেয়ের সাথে কথা বলতেন সেই মেয়ে আমি ছিলাম!’
– ওএমজি, কি বলো? কোন মেয়ে?
– ঐ যে মেডিকেল পড়ুয়া। ফাবিহা ইসলাম। ঐটা আমি ছিলাম। মানে আমার ফেইক আইডি!
– ওহ শিট, ঐ আইডির ছবি কার ছিলো?

– আমার বড় আপুর এক ফ্রেন্ডের। Continue reading “ফেইক আইডি”

Page 1 of 212