বাচ্চা-কাচ্চা (প্রথম পর্ব)

বাচ্চা পালার আমার কিছু নিজস্ব তরিকা আছে। একটু পুরানা, আমার দাদার থেকে শেখা। কিছুটা হার্ড, কিন্তু লাইন খারাপ না। কিছু টিপস মিলাই নিতে পারেন। কাজে লাগলেও লাগতে পারে।
১) দাদা আম্মারে বলতেন, ” ওবা ফুয়াইন্দরে এত ‘ধ’ নগইজ্জ, ধ গইল্যে ফুয়া ন ফাইবা” । তর্জমা হইল, বাচ্চাদের বেশী ত্যালাইওনা। বেশি ত্যালাইলে বাচ্চা হারাবা।” দাদার এই কথাটা আমি সারসত্য বলে মানি। তাই বাচ্চারে আদর করার সময় কোথায় থামতে হবে আমি সেইটা খুব মনে রাখি। বেহুদা আহ্লাদ বাচ্চাদের বেপরোয়া করে এইটা চিরন্তন সত্য। সুতরাং প্রয়োজনের অতিরিক্ত আদর গিলে ফেলে ডোজ মতো ‘টাইট’ আমি বাচ্চাদের দিই। এই জন্যই দিই যে, আমার আদরের ঝাল যেনো অন্য মানুষরে যেন টানতে না হয়। “পেটের বাচ্চা-কি করি” টাইপ থিওরি আমার জীবনে নিষিদ্ধ। সব বাচ্চাই মায়ের পেট থেকেই আসে। Continue reading “বাচ্চা-কাচ্চা (প্রথম পর্ব)”