হাম্বা মোবারাক

দাওয়াত খাওয়ার সবচেয় বড় সমস্যা হচ্ছে দাঁতের চিপায় মাংস ঢুকে যাওয়া। নিজের বাসায় থাকলে তাও খুঁচিয়ে, টেনে বের করা যায়। কিন্তু ভেজাল লাগে যখন কোথাও দাওয়াতে যাই। দাওয়াতে গিয়েতো আর সবার সামনে দাঁতের চিপা থেকে খুঁচিয়ে মাংস বের করা যায় না। কিছু মানুষ আছে আবার এইসবের ধার ধারেনা। সবার সামনেই দাঁত থেকে মাংস বের করবে আর মেঝেতে ফেলতে থাকবে। কিছু মানুষ আবার মাংস বের করে ওইটাকে চিবিয়ে কিমা বানিয়ে ক্যোঁৎ করে গিলে ফেলে। একবার এক দাওয়াতে গিয়ে দেখছিলাম এক সুন্দরী, গরুর মাংস দিয়ে ভাত খেয়ে উঠার পর তার সামনের দাঁতে মাংস ঢুকে আছে। আমি আস্তে করে তারে ইশারায় ইঙ্গিতে বুঝানোর চেষ্টা করলাম,
– “আপনার দাঁতে কিছু একটা আটকে আছে”।
সুন্দরীঃ এই যে মিষ্টার, আপনি আমাকে কিসের ইশারা দিচ্ছেন। যা বলার সরাসরি বলুন।
আমিঃ সবার সামনে বলাটা ঠিক হবেনা।
সুন্দরীঃ সৎ সাহস থাকলে সরাসরি এবং সবার সামনেই বলুন। Continue reading “হাম্বা মোবারাক”

ঈদ আসে, ঈদ যায়

ঘটনা এক
আজমল সাহেব – বুঝলেন ভাইসাহেব, ব্রাইট একটা ছেলে ছিলো আমার। জীবনে ২য় হওয়া শিখাইনি। ছেলেটা ইন্টারে খারাপ করলো, চলে গেল অন্ধকার জগতে। ড্রাগস, খারাপ জায়গা, মামলা।

রহমত চাচা – আমারও এক ছেলে ভাইসাহেব। জীবনে প্রথম হওয়া শিখাতে পারি নাই গাধাটাকে। তবে ফেল করলেও হাসতে শিখাইছি। গাধাটা এখনও রাতে মাঝে মধ্যে আপনার ভাবি আর আমার মাঝখানে ঘুমায়। তখন মনে হয় আমার এই ফেল্টুশটা আমারে জীবনে সব দিছে। গরুটার জন্য চোখে পানি চলে আসে। Continue reading “ঈদ আসে, ঈদ যায়”