ব্ল্যাক ম্যাজিক (চতুর্থ পর্ব)

সর্বপ্রথম, এই তালিকায় আসবে সে সকল মানুষেরা যারা তাদের ধর্ম থেকে বিচ্যুত। মুসলিমদের ক্ষেত্রে আল্লাহ তা’আলার নৈকট্য থেকে যে যত দূরে সে সবথেকে বেশি দূর্বল। সকল অশুভ শক্তি তাকে ঘিরেই মূলত বাসা বাধে। তাকে দিয়েই সৃষ্টি করে নিজের আধিপত্ত মানুষের উপরে। অন্য মানুষদের সামনে নিজেদের শক্তি দেখানোর একটি মাধ্যম হিসাবে তারা এমনটি করে থাকে। অর্থাৎ নিজ নিজ ধর্ম অনুযায়ী বিধি নিষেধ মেনে ছুললে আপনি যেমন সুরক্ষিত থাকবেন ঠিক তেমনই ধর্ম বিচ্যুত হয়ে পড়লে আপনি শয়তান এবং শয়তানের অধীনে থাকা জ্বীনদের কাছে হয়ে পড়বেন একটি উৎস সরূপ। Continue reading “ব্ল্যাক ম্যাজিক (চতুর্থ পর্ব)”

ব্ল্যাক ম্যাজিক (তৃতীয় পর্ব)

সকলেরই ধারনা যে ব্ল্যাক ম্যাজিকের উৎপত্তি স্থল “আফ্রিকা”তে। হ্যাঁ এটা সত্য যে আধুনিক ব্ল্যাক আর্ট আর জাদুটোনার জন্মস্থান “আফ্রিকা”তে। ঘানা তে সবথেকে বেশি ব্ল্যাক ম্যাজিকের সাধকদের দেখা যায়। কিন্তু ব্ল্যাক ম্যাজিকের আসল জন্মভূমি হল “ব্যাবিলন”। ইরাকের ব্যাবিলনের থেকেই মূলত এই রহস্যময় জিনিস এর উৎপত্তি। আমি এই পোস্টের অনেক গুলা অংশ করবো। কাড়ন ব্ল্যাক ম্যাজিক এর সম্পর্কে সঠিক ধারনা পেতে গেলে আপনাদের সকলকে জানতে হবে এর সাথে সম্পর্কিত কিছু ব্যাপার। জানতে হবে ব্ল্যাক ম্যাজিক করার ফলে আপনাদের লাভ কতটা এবং ক্ষতিই বা কতটা। আজ আমি আমার পোস্টের প্রথম খন্ডে আলোচনা করবো ব্ল্যাক ম্যাজিক এর সাথে ওতপ্রোতভাবে জড়িত একটি বিষয় নিয়ে।
আর বিষয়টি হলো “জ্বীন এর আছর” বা মর্ডান ইংলিশ এ “জ্বীন পজেশন”। Continue reading “ব্ল্যাক ম্যাজিক (তৃতীয় পর্ব)”

ব্ল্যাক ম্যাজিক (দ্বিতীয় পর্ব)

আপনারা যদি সারাদিন আকাম-কুকাম করে বেড়ান আর পড়ে আমার লেখা পড়ে হায় হায় করেন তাহলে আমার কিছুই করার নাই। সকল সমস্যারই সমাধান আছে। পাক-পবিত্রতা বজায় রাখতে পারলে মহান আল্লাহ তায়ালাই আপনাদের সাহায্য করবে। আমি আমাদের দেশ এবং বিভিন্ন মুসলিম দেশের প্রেক্ষাপটে “ব্ল্যাক ম্যাজিক”কে আপনাদের সামনে তুলে ধরবো।।

“**” এই চিহ্নের অর্থঃ- [এই লাইনটা খেয়াল রাখবেন পরবর্তিতে কাজে আসবে।]

শুরু করি, প্রথমেই আপনাদের জানা দরকার “ম্যাজিক” বা “জাদুটোনা” এর অর্থটা। আরবি শব্দ “সেহের” এর অর্থ করলে দাঁড়ায় “যা লুকায়িত আছে” বা “যা স্পষ্ট নয়”। Continue reading “ব্ল্যাক ম্যাজিক (দ্বিতীয় পর্ব)”

ব্ল্যাক ম্যাজিক (প্রথম পর্ব)

ছোট্ট একটি ঘটনা দিয়ে শুরু করতে চাই।
যশোরের নিকটবর্তী কোনো এক গ্রামে, মাজেদার শরীর খুব খারাপ। ঘন ঘন মাথা ব্যাথা করে, সব সময় তার মনে হয় তাকে কেউ দেখছে। তার ঘরে সে অন্য কারও উপস্থিতি অনুভব করে। তার স্বামী রফিককে সে আজকাল সহ্যই করতে পারে না। সে তার পাশে সুয়ে ঘুমালে তার শরীরের ভিতর এক প্রকার অস্বস্তি সৃষ্টি হয়। এভাবে দিন যতই বাড়ে মাজেদার আচরণ খিটমিটে হতে থাকে। তাকে প্রতি সন্ধ্যায় চুল খোলা রাখা অবস্থায় গ্রামের মাঠ থেকে বাড়ি ফিরতে দেখা যায়। এক রাতে গোঙানির শব্দে রফিকের ঘুম ভেঙে যায়। চোখ খুলতেই রফিক দেখে মাজেদা তার দিকে অগ্নিদৃষ্টিতে তাকিয়ে আছে। Continue reading “ব্ল্যাক ম্যাজিক (প্রথম পর্ব)”