বালক-বালিকা

“কোনো এক সময়ে আমিও ভালবেসেছিলাম,
ভালবাসায় তাকে ভাসাতে চেয়েছিলাম!”

এলিফ্যান্ট রোড থেকে আঁগারগা যাচ্ছিলাম। আমার সামনের সিটে এক কাপল বসে ছিলো। মনে হয় ঈদের শপিং করে বাড়ি ফিরছে। ছেলেটার পায়ের উপর অনেক গুলো শপিংব্যাগ রাখা। তাই দেখে মেয়েটা বেশীর ভাগ ব্যাগ ছেলেটার কাছ থেকে নিয়ে মেয়েটার পায়ের উপর রাখলো। কিন্তু ছেলেটা পর মূহুর্তেই মেয়েটার কাছ থেকে ব্যাগ গুলো নিয়ে আবার নিজের পায়ের উপর রাখলো। মেয়েটা নাছোড় বান্দা। ছেলেটার থেকে ব্যাগগুলো নিয়ে নিল। ছেলেটাকে মেয়েটা কষ্ট দিতে চাচ্ছে না। Continue reading “বালক-বালিকা”

অহংকার, ভালোবাসা ও কথিত নৌকা

“আমি তারে পারি না এড়াতে
সে আমার হাত রাখে হাতে;
সব কাজ তুচ্ছ হয়, পণ্ড মনে হয়,
সব চিন্তা — প্রার্থনার সকল সময়
শূন্য মনে হয়,
শূন্য মনে হয়!”
– জীবনানন্দ দাশ

একটি দ্বীপে সকল অনুভূতিরা (Feelings) এক সাথে সুখে শান্তিতে বাস করতো। হঠাৎ একদিন প্রচণ্ড ঝড় শুরু হলো এবং দ্বীপটি খুব দ্রুত পানিতে তলিয়ে যেতে শুরু করলো। প্রতিটি অনুভূতিই ভয় পেতে লাগলো, তারা এদিক ওদিক ছোটাছুটি শুরু করে দিলো কিন্তু একমাত্র “ভালবাসা” (LOVE) ভয় পেলো না, কারন সে আগেই সবার জন্য একটি নৌকা তৈরি করে রেখেছিল। সব অনুভূতি গুলো এক এক করে নৌকায় উঠালো, কিন্তু একটি অনুভূতি উঠতে চাইলো না। আর সেটা হলো “অহংকার” (EGO)। Continue reading “অহংকার, ভালোবাসা ও কথিত নৌকা”

স্বপ্নবিলাসী মন

“তুমি এলে বৃষ্টি ছোঁব তাইতো বসে থাকা,
প্রথম কিছু বৃষ্টি ফোটা তোমার জন্যে রাখা।”

মানুষ অনেক শখ করে খাঁচায় পাখি পোষে, নিজের সুখ-দুঃখকে পাখির খাঁচার পাশে দাঁড়িয়ে কিছুটা বোঝাতে চায় পাখিকে। নিজের শখের জন্য পাখিটিকে কখনও উড়ার সুযোগ দেয় না আর আকাশকে সামনে রেখেও পাখি ভুলে যায় তার সমস্ত কৌশল। আবার যখন মানুষ খুব বেশি আনন্দে থাকে তখন পাখিকে তাদের মনের সুখে বনে-জঙ্গলে ছেড়ে দিয়ে আসে। কিন্তু পথহারা পাখি অনেক আগেই তার ডানা থাকা সত্তেও তা বিসর্জন দিয়েছে। হয়তো কোন বড় পাখির আক্রমণে কিংবা ঝড়ের তাণ্ডবে পোষা পাখি প্রাণ হারায়। Continue reading “স্বপ্নবিলাসী মন”

পহেলা বৈশাখ বৃত্তান্ত

“এসো হে বৈশাখ,
এসো এসো…”

বাংলা ক্যালেন্ডার এর নাম “বঙ্গাব্দ” আর বছরের প্রথম দিন পহেলা বৈশাখ। এর ইতিহাস নিয়ে কিছু কথা লিখছি। পোস্ট টি করার কারন: কতিপয় ছাগু এবং গুটিকয়েক অতিমাত্রায় ঈমানদার দের মতে, এটা “বৈশাখী পূজা” মানে শুধু হিন্দুদের অনুষ্ঠান। তাদের জানামতে, পহেলা বৈশাখ কখনোই বাঙালী মুসলমানদের কালচার না। এটা নাকি বাঙালীদের উপর চাপানো হয়েছে। পাকি হুজুরদের চেতনা থেকে জানলে এমনটা জানাই স্বাভাবিক। দেখা যাক ইতিহাস কি বলে। Continue reading “পহেলা বৈশাখ বৃত্তান্ত”

বিজ্ঞানী আল-জাজারি

“আধুনিক বিশ্বে সর্বক্ষেত্রে রোবটের ব্যবহার দেখা যায়। ৮০০ বছর আগে একজন মুসলিম প্রকৌশলী আল-জাজারি কর্তৃক সর্বপ্রথম একটি পূর্বলেখন মানবাকৃতির রোবট (programmable humanoid robot) উদ্ভাবনের কারণে তাকে ‘রোবটিক্সের জনক’ হিসেবে অভিহিত করা হয়। তার পুরো নাম ‘আল-শায়খ রাইস আল-আমল বদিউজ্জমান আবু আল-ইজ্জ ইবন ইসমাঈল ইবন আল-রাজাজ আল-জাজারি’। তিনি একাধারে একজন পণ্ডিত, আবিষ্কারক, যন্ত্রপ্রকৌশলী, কারিগর, শিল্পী এবং গণিতবিদ ছিলেন। ১১৩৬ খ্রিস্টাব্দে জাজিরাত ইবন-উমর নগরীতে (তুরস্কের সিজর) তার জন্ম হয়। Continue reading “বিজ্ঞানী আল-জাজারি”

মোহাম্মাদ আলী দ্যা গ্রেট (প্রথম পর্ব)

“Float like a butterfly,
sting like a bee.”
– Muhammad Ali

ভিয়েতনামের মানুষের সঙ্গে আমার কোনো ঝগড়া নেই। শুধু সাদা চামড়ার মানুষের আধিপত্য বজায় রাখার জন্য ১০ হাজার মাইল দূরের কোনো দেশে গিয়ে মানুষের ওপর অত্যাচার করা, খুন করা, বোমা ফেলা এই কাজে আমি যুক্ত হব না। পৃথিবীর বুকে এসব অবিচার বন্ধ হওয়া উচিত।’ কথাগুলো বলছিলেন এমন একজন মানুষ, যাঁর ছিল মানবতার প্রতি ভালোবাসা, খেলোয়াড়ি ক্যারিয়ার শেষ হয়ে যেতে পারে জেনেও তিনি এই কথাগুলো বলেছিলেন। দাঁড়িয়ে গিয়েছিলেন রাষ্ট্রের বিরুদ্ধে। খেলার লাইসেন্স সাময়িকভাবে নিষিদ্ধ হয়েছিল। গ্রেপ্তারও হয়েছিলেন। তার পরও মানবতার বিরুদ্ধে গিয়ে কোনো কাজ করেননি। মানুষটি আমাদের সবার প্রিয় বক্সার মোহাম্মদ আলী। Continue reading “মোহাম্মাদ আলী দ্যা গ্রেট (প্রথম পর্ব)”

Page 237 of 240« First...102030...235236237238239...Last »