গণতন্ত্রে স্বৈরশাসন

ছয় সদস্যের আমাদের পরিবার নামক রাষ্ট্রে একসময় আব্বা ছিলেন ‘স্বৈরশাসক’! তিনি যা বলতেন তাই হতো। মাসহ আমরা চার ভাইবোন নিরীহ নাগরিক। যদিও মাঝেমধ্যেই মা-ই কিছুটা প্রতিবাদ করতেন। যদিও আব্বা পাত্তাই দিতেন না সেসব প্রতিবাদের। যতক্ষণ আব্বা বাড়িতে থাকতেন, আমরা ফিসফিস করে কথা বলতাম। পড়ার বাইরে কিছু করা মানেই ছিল ‘রাষ্ট্রদ্রোহী’ অপরাধ! অনেকটা ১৪৪ ধারা চলতো সবসময়। পড়ার টেবিল থেকে উঠার জো ছিল না। পরিবারে যেকোন সিদ্ধান্ত আব্বা-ই নিতেন। কারো মতামতের তোয়াক্কা করতেন না। কেউ তাঁর কথায় দ্বিমত পোষণ করলে বাঘের মতো হুংকার দিতেন। পুরো বাড়ি কেঁপে উঠতো। বাঘের মতো আমার সেই আব্বা, এখন যে কোন সিদ্ধান্ত নিতে সবার মতামত নেন। Continue reading “গণতন্ত্রে স্বৈরশাসন”

অলস ও বঙ্গীয় বেকারগন

বিজয় / অভ্রতে বাংলা লিখতে পারে। এমন এডমিন এসিসট্যান্ট পাওয়া যায় না। ফেসবুক পেইজ ম্যানেজ করতে গিয়ে গুছিয়ে একটা মেসেজের রিপ্লাই দিতে পারে, বেসিক ওয়ার্ড, এক্সেল ব্যবহার করতে পারে। এইটুকু দক্ষ ছেলে মেয়ে পাওয়া যায় না। ফোন রিসিভ করে সঠিক কার্টেসি মেইন্টেইন করে কথা বলতে পারে। এমন লোকেরও অভাব। প্রোডাক্ট ডেলিভারী দিতে গিয়ে কাস্টমারের সাথে সুন্দর করে কথা বলে তাকে কনভিন্স করতে পারে। এমন লোকও খুব একটা দেখিনি। প্রোডাক্ট প্রমোশনের জন্যে প্রফেশনাল এপ্রোচের বিপিও পাওয়া ভাগ্যের ব্যাপার। অথচ, চারিদিকে তাকালে বেকারের অভাব নেই। কাজ চাই, কাজ নাই। রবে সবাই সরগরম। এই প্রজন্ম নিজেদের দক্ষতা উন্নয়নে বিন্দুমাত্র সচেতন নয়।

এদিকে ছোট বড় প্রতিষ্ঠানগুলোর লোকবল তো লাগেই। তারা তখন এইসব অদক্ষ, Continue reading “অলস ও বঙ্গীয় বেকারগন”

শিক্ষা ও কর্ম বাজার

রাস্তার পাশের যে টংঘরের চা বিক্রেতা, তাঁর মাসিক আয় প্রায় ৩০-৩৫ হাজার টাকার উপরে। ভ্রাম্যমান ফুডকোর্টগুলোতে বার্গার, স্যান্ডউইচ বিক্রি হয়। সেটা থেকেও মাসিক গড়ে আয় হয় ৪০ হাজার টাকারও বেশি। এসব দোকান বা ফুডকোর্টগুলোতে যারা জড়িত বা ব্যবসা করছেন তাঁরা বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই মাধ্যমিকের গন্ডিই পার হননি। কিন্তু আমাদের অনার্স বা মাস্টার্স করা তরুণ-তরুণিগণ ৮-১০ হাজার টাকায় চাকরি জীবন শুরু করেন। সেই সঙ্গে হাড়ভাঙা পরিশ্রম তো আছেই। আছে মানসিক ‘নির্যাতন’। কিন্তু আমাদের ‘শিক্ষিত’ তরুণ-তরুণি এই ৮-১০ হাজার টাকার চাকরি করবেন। তবুও টংঘর কিংবা ভ্রাম্যমান ফুডকোর্টগুলোর সঙ্গে জড়াবেন না।

এর মূল কারন হলো আমাদের কথিত প্রেস্টিজ বা ইগো। Continue reading “শিক্ষা ও কর্ম বাজার”

শুধুই জননী

ওহ ঈশ্বর, আমি যে কি রকম ফিজিক্যাল পেইন এর মধ্যে ছিলাম। করম্যাককে আমি সাধারণত তিন ঘণ্টা পর পর ব্রেস্টফিড করাই, অথচ পুরো ষোল ঘণ্টা পরে ওর সাথে আমার দেখা হবে, তাই আমি রাস্তায় যেখানে পারছিলাম সেখানেই পাম্পার দিয়ে দুধ কালেক্ট করে রাখছিলাম। এবং ফাইনালি যখন করম্যাক এর সাথে দেখা হয়, তখন সে খুব ক্ষুধার্ত ছিল তাই আমি কষ্ট থেকে বেঁচেছি। উপরের কথাগুলো ব্রিটিশ আলট্রা রানার সোফি পাওয়ার এর। ১৬৬ কিলোমিটার আলট্রা ট্রেইল মন্ট ব্ল্যাংক ম্যারাথনে অংশ নেয়া সোফির কনিষ্ঠপুত্র করম্যাক এর বয়স মাত্র তিন মাস। রেইস এর প্রথম ১৬ ঘণ্টা সোফির স্বামী ট্রেইল এর বিভিন্ন এইড স্টেশন থেকে সোফির কাছ থেকে হ্যান্ড এক্সপ্রেসড বুকের দুধ সংগ্রহ করে পুত্রকে খাওয়ান। সদ্য মা হওয়ার কারণে Continue reading “শুধুই জননী”

মমতাময়ী মায়ের জন্য ভালোবাসা

মায়ের সাথে খুব বেশি লাগোয়া ছেলে আমি। ছোট বেলা থেকেই, আমার সকল চাওয়া-পাওয়া, দাবী কিংবা আবদার সবই আমার মায়ের কাছে। আমরা তিন ভাই এক বোন। প্রথম সন্তান হবার দরুন কিনা জানি না, আমি জন্মের শুরু থেকে আজ অব্দি মায়ের ভালোবাসা পেয়েই বেড়ে উঠেছি। সুতরাং চোখ বন্ধ করে নির্দিধায় বলে দেয়া যায় – মা’ই আমার বন্ধু, আবার মা’ই আমার বান্ধবী। তবে তাকে কখনো জড়িয়ে ধরে বলা হয়নি “I love u Maa”, তাকে নিয়ে কখনো আলাদা করে আহ্লাদী পোস্ট দেয়া হয়নি। বিদেশ বিভূয়ে থাকার কারনে, টেলিফোনের মাধ্যমে, এই এক জীবনে, ভালোবাসার চেয়ে মনের অশান্তি গুলোই মাকে বেশি দিয়েছি। “মা” পৃথিবীর সবচেয়ে বেশি ভরসার জায়গা বলেই হয়ত এমনটা করেছি। মা ভালোবাসে না এমন মানুষ হয় না। যার মা আছে সে পৃথিবীতে সবচেয়ে সুখী মানুষ। Continue reading “মমতাময়ী মায়ের জন্য ভালোবাসা”

নিশীথিনী

আউলাচুলের তরুণী স্মিত হাসে। টোল পড়ে গালে। কিন্তু দূর থেকে বোঝা যায় না। নিচের ঠোটের ডান দিকে ব্রাউন কালারের ছোট একটা তিল। যখন ক্লান্ত হয়, ঠোট শুকিয়ে যায়, তখন জিভ দিয়ে মাঝে মধ্যেই তা স্পর্ষ করে। লোভ হয়। ভীষণ লোভ হয় তখন। কখনো অট্টহাসিতে দেখিনি তরুণীকে। কিভাবে তার মাঝারি গড়নের শরীরটা নেচে উঠে হাসিতে জানা হয়নি। কপালে ভাঁজ পড়ে কী না, হাসির তোড়ে চোখ দুটো ছোট হয়ে যায় কী না! ঠোটযুগলের সঙ্গে চোখ দুটোও হাসে কী না। খুব সখ দেখার। খুউব।

গুনগুন করে গান গাইতে শুনেছি। কি গান সেটা শোনা হয়নি। রবীন্দ্র সংগীত কিংবা নজরুল সংগীত ভাল মানাবে বোধ হয়। Continue reading “নিশীথিনী”

Page 4 of 248« First...23456...102030...Last »