চিত্রশিল্পী ভিনসেন্ট ভ্যান গঘ (দ্বিতীয় পর্ব)

উনার সমস্যার কথা জানতে চাইলে উনি যা বললেন তার সারমর্ম হচ্ছে, তাকে তার স্বামী সন্তান কেও ভালবাসেনা। তার শ্বশুরবাড়ির লোকেরা সারাক্ষণ তাকে ছোট করে, ইগ্নর করে, তাকে নিয়ে আড়ালে কথা বলে, ফিসফিস করে। এমনকি তিনি মনে করেন তার স্বামীর এক্সট্রা ম্যারিটাল এফেয়ার আছে একাধিক। বাসায় যে বুয়া কাজ করে তার সাথেও তার স্বামীর সম্পর্ক আছে বলে তিনি মনে করেন। শেষ কথা হল, তার জীবন পুরাপুরি ব্যর্থ, উনি মরে যেতে চান। আমি তার সাথে খুঁটিয়ে খুঁটিয়ে কথা বললাম তার বক্তব্যের পক্ষে যুক্তি বের করার উদ্দেশ্যে। দুঃখজনক ভাবে উনি সত্যতা প্রমাণের মত কোন যুক্তিই দিতে পারলেন না। কথা বারতায় বেরিয়ে এল, এগুলো নিছক তার অনুমান, তার ইমাজিনেশন।

তার সামনে অন্য কেও কথা বলেই মনে হয় তারা তাকে নিয়েই কথা বলছে, Continue reading “চিত্রশিল্পী ভিনসেন্ট ভ্যান গঘ (দ্বিতীয় পর্ব)”

ল্যাও ঠ্যালা ডট কম

– আপনি বলছেন আপনি জেনে শুনে এমন একটা নাম দিয়েছেন?
– জি জনাব! কোন সমাস্যা?
– না তা কেন? নামটা কেমন অশ্লীল না?
– কোন এঙ্গেল এ এটা অশ্লীল?
– সব এঙ্গেল এ…।
– আরে রাহেন মিয়া পুরা দেশ এহন ঠ্যালার উপরে চলে আর আপনে কন অশ্লীল?
– দেশ ঠ্যালার উপর চলে? একটু বেশি হলো না?
– হইছে নাকি? কমায় দিমু? দেশ ধাক্কার উপর চলে। আমরা গান্ধি বাদে বিশ্বাসি তাই ধাক্কার যায়গায় ঠেলি। আইচ্ছা ভাই আপনে সাংবাদিক না অন্য কিছু? তখন থেইক্কা একি প্যাঁচালে আছেন? ঠ্যালা লাগবো?
– না না তা কেনো? তবে যাই বলেন আপনার কনসেপ্ট টা খুবি ভালো। আচ্ছা এই ঈদে লঞ্চ করছেন নতুন পোর্টাল ল্যাও ঠ্যালা ডট কম। কেন বলেন তো? Continue reading “ল্যাও ঠ্যালা ডট কম”

রিযিক

বাসার পিছনের বাগানে ভেজা কাপড় রোদে দিয়ে ঘরে ফিরে আসার সময় লক্ষ্য করলাম একটা আধা খাওয়া আপেল মেঝেতে পড়ে আছে। আপেলের উপর অসংখ্য পিঁপড়া। আপেলটা বড় ছেলেটাকে দিয়েছিলাম খেতে দুইদিন আগে। সেদিন আপেলটা মেঝেতে পড়ে থাকতে দেখে তুলে ময়লার ঝুড়িতে ফেলবো ভেবেও পরে ভুলে গেলাম। ভাবছিলাম সেদিন আপেলটা ফেলে দেওয়ার কথা আল্লাহ সুবহানাহু ওয়া তা’লাই নিশ্চিত ভাবে আমাকে ভুলিয়ে দিয়েছিলেন কারণ এই আপেলের বাকি অংশ ছিলো পিঁপড়াদের রিযিক। গ্রামের বাড়িতে দেখেছি অনেক সময় এক প্লেট ভাত খেতে যাবো এমন সময় হাত থেকে উল্টে পড়ে খাবারগুলো মেঝেতে গড়াগড়ি খাচ্ছে। এরমধ্যে হুট করে কোথা থেকে একটা বিড়াল এসে খাবারগুলো খাওয়া শুরু করে দেয়। Continue reading “রিযিক”

অন্ধকারের গান

অল্প অল্প করে গল্প পোকায়
খেয়ে রাখা মগজ,
পেতে চেয়েছিল তোমাকে আরো
একটুখানি সহজ।
“ভালো নেই” এই ছোট্ট কথাটা বলা মাত্রই একরাশ প্রশ্ন আর এক পাহাড় সমান বিশাল উদ্বিগ্নতা এনে দেয় মুহূর্তের মধ্যেই। প্রশ্নের ডালপালা শাখা-প্রশাখা ছড়িয়ে এক মুহূর্তে তৈরি করে ফেলতে পারে একটা বিশাল বড় অধ্যায়। অথচ “ভালো আছি” বলা মাত্রই মুহূর্তের মধ্যেই পরবর্তি প্রশ্নে চলে যাওয়া যায়। কথাটার কী অসামান্য জোর, তাই না? কেউ খুঁজেও দেখে না কথাটা আসল না নকল? সঠিক না ভুল? তাই হাসিমুখে বলা আর কান পেতে শোনো হয় – “আমি ভালো আছি”। Continue reading “অন্ধকারের গান”

হ্যাপি ফাদার্সডে

মেয়েরা তার মায়ের কাছে যতোটুকু প্রকাশ করতে পারে ছেলেরা ততটুকু তার বাবার কাছে প্রকাশ করতে পারেনা। মেয়েরা তার ফার্স্ট মিন্সট্রেশনের কথা মাকে জানাতে পারে কিন্তু ছেলেরা তার ফার্স্ট নাইট ডিসচার্জের কথা বাবাকে জানাতে পারেনা। মেয়েরা প্রতিদিন কোনো না কোন ভাবে মাকে স্পর্শ করে। মায়েরাও না না ছুতায় প্রিয় কন্যাকে ছুঁয়ে দেয়। কিন্তু ছেলেরা বাবার কাছে ঘেঁষতে যায়না। পিতারাও মারধর ছাড়া পুত্রকে তেমন একটা ছুঁয়ে দেখেনা। বেশির ভাগ পিতা পুত্রের মধ্যে দৌড়ঝাঁপের সম্পর্ক।

মায়েরা গভীর মমতায় তার কন্যাদের Continue reading “হ্যাপি ফাদার্সডে”

শো-অফ

খুব কম লোকই জানে ভাব নেয়া বা শো অফ করাটা আসলে সম্পূর্ন অর্থহীন একটা ব্যাপার। আপনি যা কিছু নিয়েই ভাব নেন না কেন, আপনার চেয়ে ভালো বা উন্নত কিছু অন্যদের কাছে থাকবেই। আপনি বাংলাদেশের সেরা রেস্টুরেন্টে চেক ইন দেবেন, আরেকজন দেবে এশিয়ার। আপনি এশিয়ার দেবেন, আরেকজন দেবে বিশ্বের। কে কাকে কি দেখাবে?

বিয়েতে একদল স্বর্নের গহনার পরিমান নিয়ে ভাব নেয়। Continue reading “শো-অফ”

Page 8 of 259« First...678910...203040...Last »